Home 20 জাতীয় 20 ‘আ’লীগের পালানোর পথ একটাই, অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন

‘আ’লীগের পালানোর পথ একটাই, অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন

বর্তমান সরকারের সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তার নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘এবার যদি ক্ষমতায় আসতে না পার তাহলে তোমরা পালানোর পথ পাবে না।’ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা যে অপরাধ করেছে-হত্যা, গুম, যখন, দুর্নীতি, লুটপাট করেছে এ কারণে তারা পালানোর পথ পাবে না।তিনি বলেন, স্পষ্ট করে বলতে চাই, আপনাদের পালানোর পথ একটাই আছে, দেশের সব রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সব দলের অংশগ্রহনে একটি অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করা। অন্যথায় সত্যি সত্যিই দেশের মানুষ তাদের পালানোর পথও দেবে না।সোমবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে ভাসানী মিলনায়তনে এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।বিএনপির ভিশন-২০৩০; নারী সমাজের উন্নয়ন ও অগ্রগতি’ শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ জানে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে তারা ক্ষমতায় আসতে পারবে না। দেশের জনগণ তাদের ভোট দেবে না। তাই আওয়ামী লীগ চায়, বিএনপি নির্বাচনে না আসুক।নির্বাচন কমিশন গঠনের আবারও সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, প্রশ্নবিদ্ধ ব্যক্তির মাধ্যমে ইসি গঠন করা হয়েছে। তারপরও আমরা বলেছি, একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করলে সমর্থন পাবেন। সমপ্রতি ইসি একাদশ জাতীয় নির্বাচনের রোডম্যাপ ঘোষণা করেছেন। খুব ভাল কথা। কিন্তু নির্বাচন করতে হলে সকল রাজনৈতিক দলগুলোকে একই রাস্তায় নিয়ে আসতে হবে, সেই রাস্তা কোথায়? রোড’ই যখন নেই তখন ম্যাপে কী হবে?ইসির উদ্দেশ্য মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনী পরিবেশ তৈরি করুন। রাস্তা তৈরি করুন। অন্যথায় নির্বাচনী রোডম্যাপ স্বার্থক হবে না। আপনাদেরকেও ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মত কুকুর বিড়াল নিয়ে নির্বাচন করতে হবে, মানুষ তো ভোট কেন্দ্রে যাবে না। এসব ব্যর্থতার দায় আপনাদের নিতে হবে।ভিশন ২০৩০’র নানা ইতিবাচক তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা ওয়ান ডে ডেমোক্রেসি চাই না। প্রতি মুহুর্তে আমরা সর্বত্র গণতন্ত্র চাই। এজন্য দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ১৬ টি দফায় গণতন্ত্রের কথা বলেছেন।সংগঠনের সভাপতি আফরুজা আব্বাসের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন- মহিলা দলের নূরজাহান ইয়াসমীন, সুলতানা আহমেদ, হেলেন জেরিন খান, নূরুন নাহার ও শামছুন্নাহার ভূইয়া প্রমুখ।

About dhaka

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

এক সপ্তাহের মধ্যে বাঁধ মেরামত শুরু হবে: পানিসম্পদমন্ত্রী

পানি সম্পদমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেছেন, কুড়িগ্রামে ভেঙে যাওয়া বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ এক সপ্তাহের ...

বন্দিবিনিময় চুক্তির খসড়া হস্তান্তর

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার অন্যতম আসামি দক্ষিণ আফ্রিকায় পলাতক মাওলানা তাজউদ্দিনকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ...

এসকে সিনহা ভগবান থেকে ভূতে পরিণত হয়েছেন: ওমর ফারুক

সাবেক প্রধান বিচারপতি শাহাবুদ্দিন বিচারপতি থেকে রাষ্ট্রপতি হয়ে বঙ্গভবনে বসেই ভগবান থেকে ভূতে পরিণত হয়েছিলেন। ...

মামলা তদন্তে নিরপেক্ষ থাকতে হবে: পুলিশকে আইজিপি

পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টরদের শতভাগ নিরপেক্ষতা বজায় রেখে যে কোন ধরনের প্রলোভন থেকে নিজেদের দূরে রেখে ন্যায়ের ...

গরু চুরির অভিযোগে গণপিটুনি, নিহত ২

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় গরু চুরি করে পালানোর অভিযোগে শনিবার বিকালে গণপিটুনিতে দুইজন নিহত ও একজন আহত ...