Home 20 জাতীয় 20 ঢাকার সাথে দিনাজপুরের সড়ক ও রেল যোগাযোগ বন্ধ, আরো ৪ জনের মৃত্যু

ঢাকার সাথে দিনাজপুরের সড়ক ও রেল যোগাযোগ বন্ধ, আরো ৪ জনের মৃত্যু

দিনাজপুরে বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও অধিকাংশ এলাকা এখনও পানিতে তলিয়ে আছে। দিনাজপুর শহরসহ ছয়টি উপজেলার অধিকাংশ এলাকা পানির নিচে। জেলায় বন্যা কবলিত লাখ লাখ মানুষ এখনও খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন। জেলার বিভিন্ন নদ-নদীর পানি কিছুটা কমলেও দুর্গতদের দুর্ভোগ ক্রমেই বাড়ছে।এদিকে জেলায় বন্যার পানিতে মারা গেছে আরো চারজন।দিনাজপুর-ঢাকা রেলপথের কাউগাঁ, বিরল ও বোচাগঞ্জের এলাকার রেল লাইন পানিতে ডুবে থাকার কারণে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। একই কারণে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে সড়কের ফাটল দেখা দেয়ায় যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।
দিনাজপুর শহরের বাস টার্মিনালটি এখনও এক ফুট পানির নিচে তলিয়ে আছে। ফলে সেখানে কোনো যানবাহন যেতে পারছে না।ঢাকার সাথে সব যোগাযোগ বন্ধ থাকায় বিভিন্ন যাত্রী ও ব্যবসায়ীদের চরম দুভোর্গ পোহাতে হচ্ছে।জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে প্রায় সবকটি এবারের বন্যায় তলিয়ে গেছে। অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে দিনাজপুর শহরের প্রায় পুরো অংশ এবং বিরল, বোচাগঞ্জ, কাহারোল, বীরগঞ্জ, চিরিরবন্দর, নবাবগঞ্জ, ঘোড়াঘাট উপজেলার পুরোটাই পানিতে তলিয়ে গেছে।আজ বুধবার সন্ধ্যায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দিনাজপুর শহরের বিপুল অংশ পানিতে ডুবে ছিল।শহরের উপশহর, কসবা, মিশনরোড, ঈদগাহ আবাসিক এলাকার কিছু অংশে পানি কমলেও অনেক জায়গায় এখনও পানি নামছে না।এ পানি শহরের ঐতিহাসিক গিরাজা ক্যানেল দিয়ে বেরিয়ে যাবার কথা থাকলেও ক্যানেল ভরাট থাকায় পানিতে বের হতে পারছে না।পানি উন্নয়ন বোর্ড সুত্র জানায়, শহরের বন্যার পানি এখন জলাবদ্ধতার সৃষ্টি করেছে। এ পানি কমতে আরো সপ্তাহ খানেক সময় লাগবে।দিনাজপুরে পুনর্ভবা ছাড়া সব নদীর পানি বিপদসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, দু’য়েক দিনের মধ্যেই শহর ও গ্রামাঞ্চলের পানি নিচে নেমে যাবে।এদিকে বন্যার পানিতে নিখোঁজ হওয়া তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুর পুনর্ভবা নদীর পানি বিপদসীমা ৩৩.৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
বন্যাকবলিত এলাকায় ১৬২ মে. টন চাল ও সাত লাখ টাকা বিতরণ করেছে জেলা প্রশাসন।আজ বুধবার শহরের পূর্ণভবা নদীর কাঞ্চন ব্রিজের পুরো অংশ জুড়ে বানভাসী মানুষ আশ্রয় নিয়েছে।পুরো জেলায় প্রায় ৪০০টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে।এসব আশ্রয় কেন্দ্রের অনেক বানভাসী খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন।শহরের বাঙ্গীবেচা ব্রিজ সংলগ্ন সড়কে আশ্রয় নেয়া মাঝাডাঙ্গা এলাকার বাসিন্দা ইব্রাহিম মিয়া (৬০) বলেন, ‘মানুষের অভাবে ভেসে যাওয়া ঘরের টিন, আসবাবপত্র উদ্ধার করতে পারিনি। স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে অন্যের বাড়িতে রয়েছি। তিন দিন ধরে কোনো সাহায্যও পাইনি।’জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম জানান, বন্যার পানিতে নিখোঁজ হওয়া তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।তারা হলেন, দিনাজপুর জেলা সদরের সুইহারী রহমতপাড়া এলাকার আজাদ মিয়ার ছেলে হুমায়ুন আহমেদ (১৬), বিরল উপজেলার গড়বাড়ী এলাকার সুরাই মুর্মুর মেয়ে মালিয়া মুর্মু (৫৯) ও একই উপজেলার ভুমিগাঁও এলাকার আফসার আলীর ছেলে মাকসুদুর রহমান (২০)।অপরদিকে জেলা প্রশাসনের কন্ট্রোল রুমের দায়িত্বরত ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মোকলেছুর রহমান জানান, মঙ্গলবার চিরিরবন্দর উপজেলায় দুই শিশুসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে।তাদের মধ্যে চিরিরবন্দর উপজেলার আব্দুলপুর ইউনিয়নের নান্দেরাই গ্রামের ইমান আলীর কন্যা রিনা আক্তার (১০), উত্তরপাড়া গ্রামের আমিনুল ইসলামের ছেলে আরাফাত (৭) ও ইউসুফপুর ইউনিয়নের উত্তর নওগোর গ্রামের সমশের আলীর ছেলে ফজির উদ্দিন (৬০) পানিতে ডুবে ও অমরপুর ইউনিয়নের বড় শ্যামনগর গ্রামের মৃত হাফিজ উদ্দীনের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৬৫) দেয়াল চাপা পড়ে মারা যান।এ নিয়ে এ জেলায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৬ জনে।
তবে জেলা প্রশাসনের কন্ট্রোল রুমের দায়িত্বরত ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মোকলেছুর রহমান এ পর্যন্ত ২২ জনের মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

About Dhakar News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

৫ বছরের কারাদণ্ড খালেদা জিয়ার

এতিমদের জন্য পাঠানো ২ কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ৫ ...

এবার এসএসসিতে প্রশ্ন ফাঁস হলেই পরীক্ষা বাতিল

আসন্ন এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের প্রমাণ পাওয়া গেলেই সে পরীক্ষা বাতিল করা হবে ...

‘হিন্দুত্বে’র লড়াইয়ে মুসলমানরা কোনঠাসা

ভারতে গুজরাটের আসন্ন নির্বাচনে বিজেপির ‘কট্টর হিন্দুত্ব’ আর কংগ্রেসের এবারকার ‘নরম হিন্দুত্বে’র ঠেলায় রাজ্যের মুসলিম ...

বেনাপোল বন্দর ২৪ ঘণ্টা খোলা : লোকবল সংকটে কার্যক্রম ব্যাহত

দেশের সর্ববৃহত্তম স্থলবন্দর বেনাপোল এখন সপ্তাহের সাতদিনই ২৪ ঘণ্টা খোলা। সরকার বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি ...

১০ বছরে গ্যাসের দাম ৩ গুণ বৃদ্ধির আশঙ্কা

আগামী দশ বছরের মধ্যে গ্যাসের দাম তিনগুণ বেড়ে যাবে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে এখন থেকেই প্রাইসিংয়ের ...