Home 20 আন্তর্জাতিক 20 তিন নেতার উদ্যোগে টিভি চ্যানেল

তিন নেতার উদ্যোগে টিভি চ্যানেল

তুরস্ক, পাকিস্তান ও মালয়েশিয়ার যৌথ উদ্যোগে একটি আন্তর্জাতিক মানের সংবাদ মাধ্যম গড়ে তোলার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। তিন দেশের যৌথ উদ্যোগে গড়ে তোলা হবে একটি ইংরেজী ভাষার টিভি চ্যানেল যেটি ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে গড়ে ওঠা ইসলাম ফোবিয়াসহ বিভিন্ন অপপ্রচার রোধে ভুমিকা রাখবে। এছাড়া মুসলিদের ইতিহাস ঐতিহ্য সঠিকভাবে বিশ্বকে জানাতে ভুমিকা রাখবে চ্যানেলটি।

নিউ ইয়র্কে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান ও মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ডা. মাহাথির মোহাম্মাদের এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ইমরান খান তার ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে এক টুইটে একথা জানিয়েছেন।

ইমরান খান লিখেছেন, প্রেসিডেন্ট এরদোগান, প্রধানমন্ত্রী মাহাথির ও আমি আজ বৈঠক করেছি। যেখানে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমাদের তিন দেশ যৌথভাবে একই ইংরেজী ভাষার টিভি চ্যানেল চালু করবে। যেটি ইসলামভীতি মাধ্যমে সৃষ্ট হুমকি মোকাবিলাসহ আমাদের পবিত্র ধর্ম ইসলামের বিভিন্ন বিষয়ে ভুমিকা রাখবে।

জাতিসঙ্ঘের সাধারণ অধিবেশন উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক নগরীতে সমবেত হয়েছেন বিশ্ব নেতারা। সেখানে অধিবেশনের ফাঁকে বৈঠক করেছেন এই তিন নেতা। এসময় তারা মুসলিম বিশ্বের বিভিন্ন স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে একযোগে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেন বলে জানা গেছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী আরেক টুইটার পোস্টে লিখেছন, ‘ভুল তথ্যে কারণে যেসব লোক মুসলিমদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে সেগুলো শুধরে দিতে হবে। ধর্ম অবমাননার বিষয়টি সঠিকভাবে তুলে ধরতে হবে। মুসলিম ইতিহাসের ওপর ভিত্তি করে সিরিজ ও সিনেমা তৈরি করে লোকদের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে। মিডিয়ায় মুসলিমদের মিডিয়ায় যথাযথ উপস্থিতি থাকতে হবে।

এর আগে গত জুন মাসে মুসলিম উম্মাহর স্বার্থে তুরস্ক, মালয়েশিয়া ও পাকিস্তানকে এক সাথে কাজ করার একটি প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয়েছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান ও মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর মাহাথির মোহাম্মাদের মধ্যে। একই সাথে তাদের এই প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছিল পাকিস্তান।

ওই সময় সরকারি সফরে তুরস্ক গিয়েছিলেন মাহাথির মোহাম্মাদ। আঙ্কারার প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে রজব তাইয়েব এরদোগানের সাথে একান্ত বৈঠকের পর দুই নেতা হাজির হন যৌথ সংবাদ সম্মেলনে। সেখানে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, বিবৃতি দেয়া খুব সহজ। কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া জরুরি। তাই মুসলিম উম্মার স্বার্থে তুরস্ক, মালয়েশিয়া ও পাকিস্তানের একসাথে কাজ করা জরুরি।

এরদোগানের সাথে সুর মিলিয়ে মাহাথির মোহাম্মাদ বলেন, মুসলিম উম্মাহকে অন্যদের অধীনস্ততা থেকে মুক্ত করতে হবে। এর জন্য মুসলিম বিশ্বের মধ্যে ঐক্য অত্যন্ত জরুরি। এর জন্য সবার আগে এগিয়ে আসতে হবে এই তিনটি দেশকে (তুরস্ক, পাকিস্তান ও মালয়েশিয়া)।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, এ কারণেই আমি এই তিনটি মুসলিম দেশের পারস্পারিক ঐক্য ও সহযোগিতার ওপর জোর দিচ্ছি। অন্তত এই তিনটি দেশ ঐক্যবদ্ধ থাকা উচিত যাতে আমরা প্রতিরক্ষাসহ মুসলিম বিশ্বের বিভিন্ন ইস্যুতে জোর গলায় কথা বলতে পারি।
সেই উদ্যোগের ধারবাহিকতায় এবার জাতিসঙ্ঘে তিন নেতা বৈঠকে বসেছেন বলে ইমরান খান টুইটারে জানিয়েছেন।

About News Desk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

টাকার কুমির সিদ্দিক নাজমুল

বর্তমানে লন্ডনে অবস্থানরত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে। ...

সেচ্ছা সেবক লীগ নেতাকে গুলিকরে হত্যা

লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও ইউপি সদস্য খোরশেদ আলম মিলনকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। ...

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা সঙ্কটকে আঞ্চলিক নিরাপত্তার হুমকি উল্লেখ করে এর স্থায়ী সমাধানের লক্ষে আন্তর্জাতিক ...

বাংলাদেশকে নিয়ে জাকারবার্গের ভাবনা

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ বাংলাদেশে মেনিনজাইটিস নামের স্নায়ুরোগের প্রার্দুভাব নিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট ...

নতুন মালিঙ্গা..!

এখন শুধু টি-টোয়েন্টিই খেলছেন লঙ্কান ইতিহাসের অন্যতম সেরা পেসার লাসিথ মালিঙ্গা। কিছুদিন পর হয়তো সেখানেও ...